চুল পড়া বন্ধ করার উপায় জেনে নিন

প্রিয় পাঠক, আপনি যদি চুল পড়া সমস্যার সাথে জর্জরিত হয়ে থাকেন তাহলে আমি আপনাকে নিশ্চিত করছি যে এই পুরো পোস্টটি পড়ার মাধ্যমে চুল পড়া বন্ধ করার উপায় সম্পর্কে জানতে পারবেন এবং চুল কিভাবে ঘন করতে হয় বা চুল পড়ার কারণ কি এ সকল বিষয় সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা লাভ করতে পারবেন। তাই আপনাকে আরো নিশ্চিত করছি যে আপনি একটি সঠিক জায়গায় ক্লিক করে সঠিক পোস্ট করতে এসেছেন। কেননা চুল পড়ার মতো ভয়াবহ সমস্যার মুখোমুখি সবাইকেই পড়তে হয়। 

চুল পড়া বন্ধ করার উপায় জেনে নিন

আর সাধারণত শহরে বসবাসকৃত মানুষের চুল আরও বেশি পড়ে। এবং এর জন্য অনেকেই অনেক ধরনের তেল ব্যবহার করেন বা বিভিন্ন ফেসবুক পেজ থেকে তেল কিনে প্রতারিত হয়েছেন তবুও চুল পড়া ঠেকাতে পারেননি। তাই আর চিন্তাভাবনার কোনো কারণ নেই চলুন চুল পড়া বন্ধ করার উপায় সহ চুল পড়া সংক্রান্ত বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করি। আর তার আগে আজকের আলোচনার সূচিপত্রটি দেখে নিই। 

আলোচ্য বিষয়ঃ

চুল পড়া বন্ধ করার উপায়

চুল পড়া এর মত ভয়াবহ সমস্যা থেকে যদি আপনি মুক্তি পেতে চান তাহলে বেশ কিছু উপায় অবলম্বন করার মাধ্যমে বা বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়ার মাধ্যমে আপনি এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।প্রথমত আপনি যে পানিতে গোসল করেন সেই পানি পরিবর্তন করতে হবে। কিছু অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে যার মাধ্যমে আপনি চুল পড়াকে রোধ করতে পারেন। মাথাকে সবসময় পরিষ্কার রাখুন এবং চুল যেহেতু পুষ্টির অভাবে পড়ে যায় তাই চুলে পুষ্টির যোগান দিন যার মাধ্যমে আপনার চুল হয়ে উঠুক আরো মজবুত ও শক্তিশালী। 

আরো পড়ুনঃ দাঁত ব্যথার ঘরোয়া চিকিৎসা সম্পর্কে জেনে নিন

এবং মাথার চুলে সব সময় খাঁটি তেলের ব্যবহার করুন। আর মাথায় অতিরিক্ত খুশকি হলে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিন মাথাকে সবসময় ছত্রাক এবং ব্যাকটেরিয়ার হাত থেকে বাঁচানোর জন্য খাঁটি সরিষার তেল কিংবা খাঁটি নারিকেল তেলের ব্যবহার এর বিকল্প কিছু হতে পারে না। উপরোক্ত পদক্ষেপগুলো গ্রহণের মাধ্যমে আপনি চুল পড়া বন্ধ করতে পারেন। 

চুল পড়া বন্ধ করার ভিটামিন

যেহেতু ভিটামিন এবং পুষ্টির অভাবে মাথার চুল ঝরে পড়ে তাই চুল পড়া বন্ধ করার ভিটামিন সম্পর্কে জানা প্রয়োজন এবং আরো জানতে হবে যে কোন ভিটামিনের অভাবে আমাদের মাথার চুল পড়ে যায়।তাহলে সেই ভিটামিন কে যদি আমাদের চুলে যোগান দিতে পারি তাহলেই চুল পড়া বন্ধ করতে আমরা সক্ষম হব। সাধারণত ভিটামিন বি এর অভাবে মাথার চুল ঝরে পড়ে যায়। তাই মাথার চুলে ভিটামিন বি এর যোগান দিতে হবে এবং ভিটামিন বি সমৃদ্ধ খাবারগুলো গ্রহণ করতে হবে। 

এবং এর পাশাপাশি ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবারগুলো গ্রহণ করতে হবে ভিটামিন ডি চুল পড়া সমস্যা সমাধান করতে বেশ কার্যকরী ভূমিকা রাখে। ভিটামিন ডি এবং ভিটামিন বি চুলের কোষ গঠনে সাহায্য করে। এবং চুল পড়া সমস্যাকে সমাধান করতে সহায়ক ভূমিকা রাখে। 

চুল পড়া বন্ধ করার প্রাকৃতিক উপায়

চলুন এখন আমরা জেনে নিই চুল পড়া বন্ধ করার কিছু প্রাকৃতিক উপায় সম্পর্কে। বর্তমানে যেমন চুল পড়াকে রোধ করার জন্য বিভিন্ন হারবাল তেল কিংবা চুল পড়ে গেলে আমরা হিয়ার ট্রান্সপ্লান্ট করে থাকি কিন্তু প্রাচীনকালে এ সকল পদ্ধতি ছিল না সে সময়ের মানুষ কিভাবে প্রাকৃতিক উপায়ে চুল পড়াকে বন্ধ করতো সে বিষয়ে জেনে নেই। প্রাচীনকালে মানুষ চুল পড়া রোধ করার জন্য প্রচুর পরিমাণে মৌসুমী ফল এবং শাকসবজি খেতেন। এবং এর পাশাপাশি নারিকেল তেল এবং বাদামের তেল ব্যবহার করতেন। নারিকেল তেল এবং বাদামের তেল এর মিশ্রণ চুলে ব্যবহার করলে বা মাথায় আলতো ভাবে মেসেজ করলে চুলের গোড়া আরো শক্ত হয়। 

আরো পড়ুনঃ প্রাকৃতিক উপায়ে রূপচর্চা যেভাবে করবেন

বাদামের তেল ও নারিকেল তেল চুলের গোড়ায় পুষ্টির যোগান দেয়। এছাড়া প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ও খনিজ লবণ যুক্ত খাবার গ্রহণ করতে হবে তাহলে আপনার চুল সুরক্ষিত থাকবে এবং চুল আরো শক্তিশালী ও মজবুত হবে। আপনি প্রাকৃতিক উপায়ে সকল পদ্ধতি অবলম্বন করার মাধ্যমে চুল পড়া বন্ধ করতে পারেন। 

অতিরিক্ত চুল পড়া বন্ধ করার উপায়

অতিরিক্ত হেয়ার ফল বা চুল পড়া বন্ধ করার জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ প্রোটিনযুক্ত খাবার এবং ভিটামিনযুক্ত খাবার গ্রহণ করতে হবে। আপনি যদি এই প্রোটিনযুক্ত খাবার এবং ভিটামিনযুক্ত খাবার গ্রহণ করেন তাহলে আপনার চুল পড়া বন্ধ হবে এবং চুল না পড়ার কারণে আরো বেশি ঘন হবে এবং মজবুত হবে।তাই আপনার খাদ্য তালিকায় এমন কিছু খাবার রাখুন যে খাবারগুলোতে প্রচুর পরিমাণ খনিজ লবণ জিংক ও আয়রন রয়েছে এ সকল খাবার গ্রহণ করা অপরিহার্য। এবং এর পাশাপাশি ডিমের কুসুম কলা মিষ্টি আলু এবং কলিজা মাশরুমের মতো ইত্যাদি খাবার গ্রহণ করার অভ্যাস গড়ে তুলুন। আপনি যদি নিয়ম করে এ সকল খাবার গ্রহণ করেন তাহলে আপনার চুল পড়া থেকে নিজেকে মুক্ত রাখতে পারবেন। 

চিরতরে চুল পড়া বন্ধ করার উপায়

এতক্ষণ আমরা চুল পড়া বন্ধ করার বিভিন্ন উপায় সম্পর্কে জেনেছি তবে অনেক উপায় রয়েছে যেগুলো দুই এক মাসের জন্য কার্যকরী ভূমিকা রাখলেও চিরতরে চুল পড়া বন্ধ হয় না। তাই চিরতরে চুল পড়া বন্ধ করা বা চুল পড়ার সমস্যা সমাধানের জন্য যে সকল পদক্ষেপ নেওয়া উচিত বা যে সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করলে চিরতরে চুল পড়া বন্ধ হবে চলুন সে বিষয়ে আলোচনা করি। চিরতরে চুল পড়া বন্ধ করার জন্য আপনি নিমপাতার রস নারিকেল তেলের সাথে ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া পেঁয়াজের তেল বা পেঁয়াজের রস চুল পড়া বন্ধের ক্ষেত্রে বেশ কার্যকরী ভূমিকা রাখে। 

আরো পড়ুনঃ সাত দিনে মোটা হওয়ার উপায় সম্পর্কে জানুন

তাছাড়া কালো জিরার তেল মাথার ত্বকে সুস্থ রাখে এবং চুল পড়া কমাতে সাহায্য করে। হারবাল তেল এবং আমলকির তেল চুল পড়া বন্ধের জন্য বেশ কার্যকরী উপাদান। তাই আপনি যদি আপনার চুল পড়ার সমস্যাকে চিরতরে বিদায় জানাতে চান তাহলে তেল গুলো ব্যবহার করতে পারেন এবং চিরতরে চুল পড়া বন্ধ করতে পারেন। আশা করছি আপনি চুল পড়া বন্ধের বেশ কিছু উপায় বা পন্থা সম্পর্কে সম্পূর্ণ জ্ঞান লাভ করেছেন। তাই পোস্টটি আপনার বন্ধুদের মাঝে কিংবা আপনার সোশ্যাল মিডিয়ার যেকোনো অ্যাকাউন্টে শেয়ার করতে ভুলবেন না ধন্যবাদ।

Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url